দক্ষিণ আফ্রিকা লিগের সবগুলো দল কিনলেন আইপিএল মালিকরা

Featured লিড নিউজ

ছয়টি দল নিয়ে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ আয়োজন করতে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা। চমকপ্রদ ব্যাপার হলো, সবগুলো দলের মালিকই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) কোনো না কোনো দলের মালিক। ফলে প্রতিযোগিতাটিকে আইপিএলের ছোট সংস্করণ বা ‘মিনি আইপিএল’ হিসেবে অভিহিত করা হচ্ছে।

বুধবার দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ) নিশ্চিত করেছে যে তাদের টি-টোয়েন্টি লিগের দলগুলোর প্রত্যেকটি কিনেছেন আইপিএল মালিকরা। আগামী ২০২৩ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিযোগিতাটি। সবমিলিয়ে ২৯টি প্রতিষ্ঠান ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো কেনার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছিল। নিলাম প্রক্রিয়া শেষে দলগুলো কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে আইপিএলের ছয়টি দলের মালিকরা।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মালিক রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। তারা কিনেছে কেপ টাউনের দল। লখনউ সুপার জায়ান্টসের মালিক আরপিএসজি স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড। তাদের অধীনে খেলবে ডারবানের দল। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের মালিক সান টিভি নেটওয়ার্ক লিমিটেড কিনেছে পোর্ট এলিজাবেথের দল। জোহানেসবার্গের দল কিনেছে চেন্নাই সুপার কিংসের মালিক চেন্নাই সুপার কিংস ক্রিকেট লিমিটেড। রাজস্থান রয়্যালসের মালিক রয়্যালস স্পোর্টস গ্রুপ। তারা কিনেছে পার্লের দল। দিল্লি ক্যাপিটালসের সহ-মালিক জেএসডাব্লিউ স্পোর্টস। তাদের অধীনে খেলবে প্রিটোরিয়ার দল। তবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মালিক বলিউড মহাতারকা শাহরুখ খানের নাইট রাইডার্স গ্রুপ কোনো দল কেনেনি।

দক্ষিণ আফ্রিকার এই টি-টোয়েন্টি লিগের প্রধানের দায়িত্বে আছেন দলটির সাবেক তারকা অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ। প্রতিযোগিতাটি নিয়ে তিনি উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেছেন, ‘আমরা আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে আগামী ২০২৩ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হবে এই লিগ। নতুন ছয়টি দলকে স্বাগত জানাচ্ছি আমরা। দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটের জন্য এটা দারুণ সময়। ক্রিকেট বিশ্বে এখনও যে দক্ষিণ আফ্রিকার গুরুত্ব রয়েছে সেটাই প্রমাণ করে এই লিগ।’

টি-টোয়েন্টি লিগের নাম ও অংশগ্রহণকারী দলগুলোর নাম শিগগিরই চূড়ান্ত করা হবে। প্রতিযোগিতাটির সম্প্রচারের দায়িত্বে থাকছে সুপারস্পোর্ট। এর আগেও দুবার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক লিগ আয়োজনের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড। এবার তাই তারা আটঘাট বেঁধে নেমেছে সফলতা পাওয়ার জন্য।

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররা যাতে এই টি-টোয়েন্টি লিগে খেলতে পারে সেজন্য অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একটি ওয়ানডে সিরিজ বাতিল করেছে সিএসএ। আগামী জানুয়ারিতে সিরিজটি অনুষ্ঠিত হওয়ার সূচি ছিল। এতে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের গুরুত্বপূর্ণ ৩০ পয়েন্ট হারিয়েছে প্রোটিয়ারা। তাতে ভারতে অনুষ্ঠেয় ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে তাদের সরাসরি জায়গা করে নেওয়া পড়েছে ঝুঁকিতে।