মালিক পালাতে পারে তাই দিনরাত পাহারা

অর্থনীতি বিশেষ প্রতিবেদন মহানগর লিড নিউজ সমগ্র বাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর দক্ষিণখান থানার চালাবন হাজীপাড়ায় অবস্হীত ব্লু ঈগল গারর্মেন্সটি গত দুই দিন যাবৎ শ্রমিকরা পাহারা দিয়ে চলেছে। কারণ জানতে চাইলে তারা বলেন, আমাদের কিছু না জানিয়ে মালিক তার প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ করে পালিয়ে যাওয়ার পায়তারা করছেন।

এই গারর্মেন্সে প্রায় ৫০০ শ্রমিক কর্মরত আছে। হঠাৎ করে মালিকের এমন সিন্ধান্তে যেন আকাশ ভেঙ্গে পড়ে শ্রমিকদের উপর। তাদের দবী ২৬ দফা। যাহা বিজিএমইএ শ্রম আইন মোতাবেক। কারখানা বন্ধ করতে হলে ৩ মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস সহ যাবতীয় পাওনা পরিশোধ করতে হবে।

কিন্তু পরিতাপের বিষয় হল, গত তিন দিন যাবৎ শ্রমিকরা কাজ বন্ধ রাখা শর্তে ও ফ্যাক্টরী মালিক রেজাউল করিম সুজন বা তার পাটনার হুমায়ুন একটি বারের জন্যও আসেননি শ্রমিকদের সাথে কথাও বলেননি। এতে করে শ্রমিকরা আরোক্ষিপ্ত হন। অনেক শ্রমিককে বলতে শুনাযায় গারর্মেন্সটি বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। তিনি ইপিজেড ( সাভারে) নতুন ভাবে ব্যবসা শুরু করতেছেন।

এই সমস্যা সমাধানে বিজিএমইএর কোন প্রতিনিধী দল আজ পর্যন্ত আসেননি। তারা আরো বলেন, মালিকের কিছু দালাল চাচ্ছেন শেষ সিমেন্টটা দিয়ে তারা চম্পট দিবেন। সিমেন্ট যেন দিতে না পারে তার জন্য শ্রমিকরা দিনরাত ধরে পাহারা দিচ্ছেন।