গুলশানে হবে দৃষ্টিনন্দন সিভিক সেন্টার ও ডিএনসিসি টাওয়ার: মেয়র আতিক

জাতীয় বিশেষ প্রতিবেদন মহানগর লিড নিউজ সমগ্র বাংলা

আলিফ হাসান: (স্টাফ রিপোর্টার)

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি’র) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশী স্থপতিদের ডিজাইনেই গুলশানে নির্মিত হবে বিশ্বের অন্যতম দৃষ্টিনন্দন “ঢাকা উত্তর সিভিক সেন্টার ও ডিএনসিসি টাওয়ার”।

বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর আগারগাঁও এলাকায় বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটে আয়োজিত “ঢাকা উত্তর সিভিক সেন্টার ও টাওয়ার ডিজাইন” শীর্ষক উন্মুক্ত নকশা প্রতিযোগীতার চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

ডিএনসিসি মেয়র স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে বলেই এক সময়ের তথাকথিত তলাবিহীন ঝুড়ির বাংলাদেশই আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল।

মেয়র বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অসংখ্য বাংলাদেশী স্থপতি সৃজনশীল কাজের মাধ্যমে নিজের মেধা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে সুনাম অর্জনের পাশাপাশি দেশের ভাবমূর্তিকেও উজ্জ্বল করেছেন।

তিনি বলেন, ৩৯ জন স্থপতি ও স্থাপত্য প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত মডেলগুলো ১২ থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে জুরী বোর্ডের মাধ্যমে বিচার-বিশ্লেষণ করে “ঢাকা উত্তর সিভিক সেন্টার ও টাওয়ার ডিজাইন” শীর্ষক উন্মুক্ত নকশা প্রতিযোগীতার চূড়ান্ত ফলাফল নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, জুরী বোর্ডে ছিলেন ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহাম্মদ আমিরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (পুর) মোঃ ফরহাদ, ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যসিফিকের স্থাপত্য বিভাগের ডীন স্থপতি ড. আবু সাঈদ এম আহমেদ, বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের ফেলো সদস্য স্থপতি কাজী এম আরিফ, সদস্য স্থপতি প্যাট্রিক ডি রোজারিও, ২৪তম নির্বাহী পরিষদের সহ-সভাপতি স্থপতি খান মোহাম্মদ মুস্তফা খালীদ।

মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, প্রতিযোগিতায় মোঃ শরীফ ইউ আহমেদ এর মডেলটি প্রথম স্থান, স্থপতি শাহ ফুয়াদ মোঃ সাইরাস এর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের টীমের মডেলটি দ্বিতীয় স্থান এবং স্থপতি মোহাম্মদ সাইফুজ্জামান এর নেতৃত্বাধীন চৌদ্দ সদস্যের টীমের মডেলটি তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে।

তিনি আরও বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অপরিকল্পিত ঢাকাকে সবার বাসযোগ্য একটি সুস্থ্য, সচল ও আধুনিক নগরীতে রূপান্তরিত করতে হবে।

ডিএনসিসি মেয়র প্রধান অতিথি হিসেবে নিজের বক্তৃতাশেষে ফিতা কেটে প্রতিযোগিতায় প্রাপ্ত মডেলগুলো সর্বসাধারণের জন্য তিন দিনব্যাপী উন্মুক্ত প্রদর্শনীর শুভ উদ্বোধন করেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সেলিম রেজা, বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের ২৪তম নির্বাহী পরিষদের সভাপতি স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।