ফের হাসপাতালে ভর্তি কাজী হায়াৎ

বিনোদন মহানগর লিড নিউজ সমগ্র বাংলা স্বাস্থ্য

হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন নন্দিত পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও অভিনেতা কাজী হায়াৎ। বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। অনেক দিন ধরেই হার্টের সমস্যায় ভুগছেন তিনি।

দেশবাসীর কাছে বাবার সুস্থতায় দোয়া চেয়ে কাজী হায়াতের ছেলে কাজী মারুফ ফেসবুকে লেখেন, ‘আমার বাবার অষ্টমবারের মতো এনজিওগ্রাম করতে হাসপাতালে। তিনি কিছুটা অসুস্থ বোধ করছেন। তার শরীরে এখন পর্যন্ত ৮টি রিং পরানো রয়েছে। সম্ভবত আবারও ব্লক হয়েছে আব্বুর।’

কাজী মারুফ আরও লেখেন, ‘দেশবাসীর কাছে অনুরোধ, প্রতিবারের মতো এবারও যেন সবাই আব্বুর পাশে থাকেন। যাতে তিনি সুস্থ হয়ে আবারও আমাদের মাঝে ফিরে আসতে পারেন। আমার আব্বুকে আপনাদের দোয়াতে মনে রাখবেন।’

অন্যদিকে অভিনেত্রী জাহারা মিতু তার স্ট্যাটাসে জানিয়েছেন, ”পৃথিবীতে একটিমাত্র মানুষের নামের সাথেই আমি সবসময় ‘সাহেব’ বিশেষণটি ব্যবহার করি। একজন মানুষ যার দিকে তাকালেই আমি সম্মান খুঁজে পাই, যিনি আমাকে পিতৃস্নেহ দিয়েছেন। যিনি আমাকে প্রতিটি সময় কাজকে আরো বেশী ভালোবাসতে শিখিয়েছেন।

যার সাথে কাটানো প্রতিটি মুহূর্ত আমি কিছু না কিছু শিখেছি। আমি যদি পারতাম তবে আমার প্রতিটি কাজেই তাকে সঙ্গী (হোক পরিচালক কিংবা সহ-অভিনেতা) হিসেবে চাইতাম।”তিনি আরও লেখেন, ‘আমাদের প্রিয় কাজী হায়াৎ সাহেব অসুস্থ হয়ে একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

সম্ভবত হার্টে ব্লক আছে। আল্লাহ আপনাকে দ্রুত সুস্থ করে দিক এই দোয়া করছি। সবাই দোয়া করবেন তার জন্য। আল্লাহ ভরসা।’বছর খানেক আগে যুক্তরাষ্ট্রে কাজী হায়াতের ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয়েছিল। এরপর গত মার্চে করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। সে সময় ১৩ দিন হাসপাতালে কঠিন সময় পার করে সুস্থ হয়ে বাসায় ফেরেন প্রবীণ এই নির্মাতা।

উল্লেখ্য, ‘দ্য ফাদার’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ১৯৭৯ সালে পরিচালক হিসেবে যাত্রা শুরু করেন কাজী হায়াৎ। এরপর তার হাতে নির্মিত হয়েছে ‘দাঙ্গা’, ‘ত্রাস’, ‘চাঁদাবাজ’, ‘আম্মাজান’, ‘ইতিহাস’, ‘কাবুলিওয়ালা’সহ অনেক জনপ্রিয় সিনেমা।