শিক্ষকের দোকান থেকে সার জব্দ,ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদন্ড

সমগ্র বাংলা

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে অবৈধভাবে মজুদকৃত ৫৭বস্তা সার জব্দ করেছে ভ্রাম্যামাণ আদালত। এসময় অবৈধ মজুদের দায়ে ভ্রাম্যাণ আদালত সার মজুদকারীকে ৮হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়।

বুুধবার আজ (১ ডিসেম্বর) বিকেলে সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৈতি সর্ববিদ্যা জব্দকৃত সার এলাকার ৯০ জন কৃষকের মাঝে বিনামুল্যে বিতরণ করে দেন। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা কমিশনার (ভূমি) মো. আরিফুর রহমান অভিযান চালিয়ে এসব সার জব্দ করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার চরক্লার্ক ইউনিয়নের ভান্ডারী মার্কেট এলাকায় মো. আব্দুর সোহাগ নামে এক ব্যাবসায়ীর দোকান থেকে লাইসেন্স বিহীন অবৈধ ভাবে মজুদকৃত ৩৪ বস্তা ডিএপি ও ২০ বস্তা টিএসপি সার উদ্ধার করেন উপজেলা কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফুর রহমান।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগীতা করেন উপজেলা কৃষি অফিসার মো. হারুন অর রশীদ, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শাহাব উদ্দিন ও চরজব্বার থানা পুলিশ।

অবৈধ সার মজুদকারী আব্দুর রহমান সোহাগ সুবর্ণচর উপজেলার পুর্বচরবাটা ইউনিয়নের ছমির হাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছে।