সহপাঠীর মৃত্যুতে স্লোগানে উত্তাল গুলিস্তান-বেইলি রোড

লিড নিউজ শিক্ষা

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির ধাক্কায় শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় গুলিস্তান জিরো পয়েন্টে অবস্থান করছে নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। এ সময় তাদের ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ স্লোগানে উত্তাল হয়ে ওঠে গুলিস্তান এলাকা।

বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুর ১২টার পর তারা গুলিস্তানে হকি স্টেডিয়ামের পাশে দুর্ঘটনাস্থলে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় তাদের হাতে বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত প্ল্যাকার্ড দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি আদায়ে কর্মসূচি ঘোষণা করতে পারেন।

এর আগে বেলা সোয়া ১১টায় তারা নটর ডেম কলেজের সামনে জড়ো হন। এরপর সাড়ে ১১টা নাগাদ তারা শাপলা চত্বরের সড়কে অবস্থান নেন। পাশাপাশি ঘটনার প্রকৃত আসামির গ্রেপ্তার ও দ্রুত বিচার দাবি করেন।

তাদের অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে- মানুষসহ সড়কের সব প্রাণীর নিরাপত্তা দিতে হবে, ২০১৮ সালের নিরাপদ সড়ক আইন বাস্তবায়ন করতে হবে, নাঈমের (গাড়ি চাপায় নিহত) পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

এদিকে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হওয়ার ঘটনায় বেইলি রোড অবরোধ করেছে ভিকারুননিসার ছাত্রীরা। আজ বৃহস্পতিবার বেইলি রোড থেকে কাকরাইলগামী রাস্তা অবরোধ করে এমন ঘটছে প্রশাসনের নিকট জবাব চাইছে শিক্ষার্থীরা। এসময় তাদের হাতে অসংখ্য দাবি, প্রশ্ন সম্বলিত প্ল্যাকার্ড দেখা যাচ্ছে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি)-এর একটি ময়লা গাড়ি চালাচ্ছিলেন একজন সুইপার। সেই গাড়ির ধাক্কায় গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হন।

এদিকে, ওই ঘটনায় বিচারের দাবিতে বেইলি রোডে অবস্থান নেওয়ায় এসব সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

এ ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া ওই ‘গাড়ির চালক’ রাসেলকে (২৬) প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে পল্টন থানার ওসি সালাহ উদ্দিন মিয়া বলেন, ‘গ্রেপ্তার রাসেল গাড়িটির মূল চালক নয়। এ ধরনের ভারী গাড়ি চালানোর তেমন অভিজ্ঞতাও তার নেই।’

নাঈম লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার কাজিরখিল গ্রামের শাহ আলমের ছেলে। মায়ের নাম জান্নাতুল ফেরদৌস। তার বাবার নীলক্ষেতে বইয়ের ব্যবসা রয়েছে। কামরাঙ্গীর চর ঝাউলাহাটি চৌরাস্তা এলাকায় নিজেদের বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে থাকত সে। দুই ভাইয়ের মধ্যে সে ছিল ছোট।