নির্বাচনী আচরণবিধি ভেঙে ভোটকেন্দ্রে এমপি মমতাজ

লিড নিউজ সমগ্র বাংলা

নিউজ ডেস্ক

মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে ব্যক্তিগত গাড়ি ও এক ডর্জনের বেশি দলীয় নেতাকর্মী নিয়ে ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন মানিকগঞ্জ -২ আসন (সিঙ্গাইর-হরিরামপুর) সংসদ সদস্য কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম।

বৃহস্পতিবার আজ (১১ নভেম্বর) দুপর ১২টা ১৫ মিনিটে মমতাজ বেগম চারিগ্রাম ইউনিয়নের ২৭ নম্বর চারিগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে নিজের গাড়ি নিয়ে যান। পরে তিনি ভোটকেন্দ্রের বুথের ভেতর ঢুকে কেন্দ্রটি পরিদর্শন করেন।

তিনি ভোটকেন্দ্রের ভেতরে গিয়ে পোলিং এজেন্ট ও প্রার্থীর এজেন্টদের সাথে কুশল বিনিময় করেন। এ সময় তার সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শহিদুর রহমান শহিদ, সায়েদুল ইসলাম,আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী দেওয়ান মো. রিপন হোসেনসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ নেতাকর্মীরা।

এ সময় স্থানীয় সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম বলেন, আমি আমার জয়মন্টপ ইউনিয়নে ভোট দিয়েছি। এরপর কয়েকটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। ভোটার উপস্থিতি ভাল আছে। খুব শান্তি শৃঙ্খলার সাথে সবাই ভোট দিচ্ছে। কোথাও কোনো গোলমালের খবর পাওয়া যায়নি।

আপনি জনপ্রতিনিধি হয়ে ভোটকেন্দ্রে কেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যতদিন আচরণবিধির বিষয় ছিল যে এমপিরা আসতে পারবে না, ভোট চাইতে পারবে না। সেটা চাচ্ছি না। আমি সব কেন্দ্র একটু ঘুরে দেখছি, যে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটগ্রহণ হচ্ছে কিনা।

আপনার দেখার মধ্যে আচরনবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, না ওইরকম কিছু না। একটু দেখে যাওয়ার বিষয়ে আমি প্রশাসনের সাথে আলাপ করে এসেছি। তারা বলেছেন একটু দেখে দেখে গেলে সমস্যা নাই। এ কারণে আমার আসা।

আপনাকে দেখে ভোটাররা ভয় পেতে পারেন, এমন কথা প্রসঙ্গে মমতাজ বলেন, আমাকে দেখে ভোটাররা ভয় পায় না। বরং না এলে ভোটারা বেজার হয়। আবার আমার মুখের মাস্ক খুলতে বলে। আমাকে একটু দেখবে বলে। ভোটররা ভোট দিয়ে খুশি, আমাকে দেখেও খুশি। আমি যদি কোথাও প্রভাব বিস্তার করি তাহলে সেটা আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে। কিন্তু আমি সেটা করছি না। আমি প্রশাসনের সাথে কথা বলে এসেছি।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শেখ মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী একজন সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি (মমতাজ বেগম) আসতে পারেন না। তবে তিনি তার নিজ কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারবেন।

হাবিবুর রহমান বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি মমতাজ ম্যাডামের সাথে কথা বলেছি। তিনি ভোটকেন্দ্র থেকে চলে গেছেন।

আচরণবিধি লঙ্ঘন করার কারনে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে জেলা নির্বাচন কমিশনার বলেন, এ ব্যপারে যদি কেউ অভিযোগ করেন তাহলে আমরা তার বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে জানাব। ওপর থেকে যেভাবে নির্দেশ আসবে, আমরা সেভাবে কাজ করব।