নোয়াখালীতে ছাত্রকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষক শ্রীঘরে

সমগ্র বাংলা

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষককে গ্রেফতার করে কারাগারে পাটিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত মাওলা নুরুল আলম (২৫) সে উপজেলার চরজুবিলী ইউনিয়নের একটি হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। তাঁর বাড়ি উপজেলার চরজুবিলী গ্রামে।

মঙ্গলবার ( ২নভেম্বর) বিকেলে বিচারিক আদালতে মাধ্যমে গ্রেফতারকৃত শিক্ষককে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
এর আগে গত সোমবার রাতে ভুক্তভোগী ছাত্রের মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে চরজব্বর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে প্রেরণ করে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ছাত্র (১১) মাদ্রাসার আবাসিকে থেকে পড়াশোনা করে। গত ১৮ অক্টোবর রাতে আবাসিকে থাকা অন্য শিক্ষার্থীরা ঘুমিয়ে পড়লে শিক্ষক নুরুল আলম ছেলেটিকে ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিকবার যৌন নির্যাতন করেন। এরপর ছেলেটি ছুটি নিয়ে বাড়িতে গিয়ে আর মাদ্রাসায় আসতে চায় না। পরে ঘটনাটি ছেলে তার মাকে জানায়। একপর্যায়ে মাদ্রাসা কমিটিকে ছাত্রের পরিবার অভিযোগ করে। বৈঠকে মাদ্রাসা কমিটি অভিযোগের সত্যতা পেয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে চাকরিচ্যুত করে। গত সোমবার এলাকাবাসী বিষয়টি জেনে অভিযুক্ত শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ করে।

চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল হক বলেন, ভুক্তভোগী ছাত্রের মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।