দ্বিতীয় ধাপে বিনা ভোটে জনপ্রতিনিধি হলেন ৩৬০ জন

লিড নিউজ সমগ্র বাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ৮১ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া সাধারণ ওয়ার্ডে ২০৩ জন এবং সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ৭৬ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

গত মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে অনেকে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেন। ফলে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা বিনা ভোটে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। বাকি শুধু ইসির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের তথ্য মতে, এ দফার নির্বাচনে ৩২টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেননি। যাচাই-বাছাইয়ে আরও কয়েকটি ইউপিতে কয়েকজন প্রার্থী বাদ পড়ায় একক প্রার্থীর সংখ্যা বেড়ে যায়।

মঙ্গলবার প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিনে একক প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৮১-তে। এদিন চেয়ারম্যান পদে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন মোট ৫৭২ জন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডের সদস্য পদে ১৯৩ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে এক হাজার ৬৬৪ প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন। এ অবস্থায় ৮৪৬ ইউপিতে বিনা ভোটে জয়ীরা বাদে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে তিন হাজার ৩১০, সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৯ হাজার ১৬১ এবং সাধারণ ওয়ার্ডে ২৮ হাজার ৭৭৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় থাকলেন। এর আগে প্রথম ধাপে গত ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ৩৬৪টি ইউপির মধ্যে ৭২ জন চেয়ারম্যান একক প্রার্থী হিসেবেই জনগণের ভোট ছাড়াই নির্বাচিত হয়েছেন।

ইসি সূত্রে জানা গেছে, এ পর্যন্ত তিন ধাপে ২ হাজার ১৭৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। তৃতীয় ধাপের এক হাজার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় শেষ না হওয়ায় এ ধাপের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ীর সংখ্যা পাওয়া যায়নি। ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট হবে।

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।